Thursday, April 18International Online Tv Portal
Shadow

সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রসংশিত অভিনেতা ও পুলিশের এসআই জাহাঙ্গীর

অনলাইন ডেস্ক :

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক ও ইউটিউবে পুলিশি সেবা ও অপরাধ নির্মূলে নানা ধরনের ভিডিও কন্টেন্ট তৈরি করে ব্যাপক মানুষের মনে জায়গা করে নিয়েছে এবং প্রশংসায় ভাসছেন পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) জাহাঙ্গীর আলম।

পুলিশ সদস্য জাহাঙ্গীর আলম কুড়িগ্রাম জেলার চিলমারী উপজেলায় জুম্মাপাড়া এলাকায় জন্যগ্রহণ করেছেন। বর্তমানে এই পুলিশ সদস্য টাঙ্গাইল জেলার ধনবাড়ী থানায় উপপরিদর্শক (এসআই) পদে কর্মরত আছেন।

এসআই জাহাঙ্গীর আলম বিভিন্ন টিভি চ্যানেল এবং ইউটিউব চ্যানেলে অভিনয় করে প্রশংসা কুড়িয়েছেন। তার অভিনীত নাটকগুলোর মধ্যে তিন গোয়েন্দা, বিল্টুমামা, মধ্যরাতের ট্রেন, থ্রিসিস্টার্স, শঙ্খ সাদা পরিবার, হলুদ শাড়ী লাল পাড়, ঘাটের মানুষ, লাকিনিউটন, ইস্যু, রাঙ্গাভুবন, ভজকটসহ চ্যানেল আইতে প্রচারিত ক্রাইম স্টোরির অসংখ্য এপিসোডে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন। লেখালেখিতেও সিদ্ধহস্ত এসআই জাহাঙ্গীর আলম তোমাকে চাই, সিক্ত দহন, হৃদয় পোড়ানো গন্ধ নামক তিনটি উপন্যাসও লিখেছেন।

জনগণ এবং বাংলাদেশ পুলিশের মধ্যকার দূরত্বকে কমিয়ে আনার লক্ষ্য নিয়ে পুলিশ সদস্য জাহাঙ্গীর আলম বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ড স্যোশাল মিডিয়ার মাধ্যমে জনগণকে উপহার দিয়ে আসছেন প্রতিনিয়ত।

আইন না জানা সাধারণ প্রান্তিক মানুষের মাঝে আইনগত বিভিন্ন তথ্য, তার ভিডিওর মাধ্যমে মানুষকে জানানোর চেষ্টা করেন তিনি। কীভাবে মামলা করতে হয়, কীভাবে জিডি করতে হয়, কেন গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ইস্যু হয়, রিকলের কাজ কি। কখন, কোথায় রিকল জমা দিতে হয়। প্রতারণার হাত থেকে বাঁচার উপায় কি, সড়ক নিরাপদ রাখার উপায় কি, বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তার ফেসবুক পেইজে ভিডিও করে পোস্ট করে থাকেন। এতে করে আইনের প্রতি সঠিক ধারণা না থাকা মানুষগুলো অনেক উপকার পাচ্ছেন। ইতিমধ্যে জাহাঙ্গীর আলমের ফেসবুক পেইজে প্রায় ২মিলিয়ন ফলোয়ার তৈরি হয়েছে।

এই পুলিশ সদস্য যে জায়গাতেই কর্মরত থাকেন সেই অঞ্চলের মানুষের সঙ্গে তার একটা আত্মার সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বাংলাদেশ পুলিশে নতুন সংযোজিত বিট পুলিশিং কার্যক্রম নিয়ে যেসব থানায় কাজ করেছেন সেসব অঞ্চলে তিনি বেশ আলোচিত হয়েছেন। তার জনপ্রিয়তা এতটাই যে ইতিপূর্বে কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলায় তিনি একটি বিট এলাকার দায়িত্বে ছিলেন সেখান থেকে তাকে বদলি করে অন্য বিটে দায়িত্ব দেওয়ায় তাকে পূর্বের বিটে বহাল রাখার দাবিতে বিশাল মানববন্ধন হয়েছিল। তিনি তার কর্মস্থলে বিভিন্ন দায়িত্বের পাশাপাশি সুবিধাবঞ্চিত আইন না জানা সাধারণ মানুষের জন্য সর্বদা নিবেদিত প্রাণ একজন মানুষ।

পুলিশ সদস্য জাহাঙ্গীর আলম বলেন, একজন মানুষ হিসেবে আমি চাই মানুষের দুঃসময়ের বন্ধু হতে। তাই নিজের সাধ্যানুযায়ী সব সময় চেষ্টা করি সমাজের অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে। আমি যেহেতু একজন পুলিশ সদস্য সেক্ষেত্রে ডিপার্টমেন্ট থেকে যদি এ কাজের জন্য আরো বেশি উৎসাহ পাই তাহলে আশা করি আমার এই কর্মকান্ডের মাধ্যমে বাংলাদেশ পুলিশের সুনাম আরও অনেক বৃদ্ধি পাবে।
তিনি আরো বলেন, ছোটবেলা থেকেই মানুষের দুঃখ-কষ্ট দেখলে সহ্য হয় না। নিজের বেতনের টাকা থেকেও নিজের গ্রামের কিছু গরিব পরিবারকে সাহায্য করেন জাহাঙ্গীর আলম। কর্তব্য পালন করতে গিয়ে জাহাঙ্গীর আলম যে মহৎ ও মানবিক কর্ম করে চলেছেন তা অবশ্যই প্রশংসার দাবিদার।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *